সারাদেশ

গিয়াসউদ্দিনের ৭ দিনের রিমান্ড শুনানি মঙ্গলবার

দুদককান্ডে সাবেক সংসদ সদস্য ও নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিনের ৭দিনের রিমান্ড শুনানি ১১ জুন অনুষ্ঠিত হবে।

কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আব্দুর রশিদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, তিনটি থানার মোট ৬টি মামলায় আজ গিয়াসউদ্দিন সাহেবের রিমান্ড ‍শুনানী ছিলো। তবে, ওনার আইনজীবী হাই কোর্টের জামিনের কাগজ প্রদর্শনের প্রেক্ষিতে আগামী ১১ তারিখ পরবর্তী শুনানীর তারিখ নির্ধারণ করেছেন। কাগজ যাচাই-বাছাই এর প্রেক্ষিতে পরবর্তীতে আদেশ প্রদান করা হবে। তাই আজকে তার কোন রিমান্ড মঞ্জুর করা হয় নাই।

বুধবার (৫ জুন) সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ৪টি আড়াইহাজার থানার একটি ও বন্দর থানার একটি করে মোট ৬টি মামলায় ৭দিন করে রিমান্ডের আবেদন করে পুলিশ। পরে নারায়ণগঞ্জের তিনটি আমলী আদালত অবেদন স্থগিত করে পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করেন। 

জানা যায়,  নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন থানার ১৩টি মামলায় উচ্চ আদালত থেকে জামিন লাভ করায় তার রিমান্ড শুনানী স্থগিত করে আদালত।

এদিন সকাল ১১টায় ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে নারায়ণগঞ্জ আদালতে আনা হয় মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিনকে। তার আসার খবর পেয়ে আদালত প্রাঙ্গনের ভিড় জমায় বিএনপির নেতাকর্মীরা। আর তাই আদালত জুড়ে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ২০২১ সালের ১৯ ডিসেম্বর ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ দুদক উপপরিচালক জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় গত ১২ মে ঢাকা মেট্রোপলিটন সিনিয়র স্পেশাল জজ আস সামছ জগলুল হোসেনের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

পরে, পরে ১৬ মে পুলিশ তাকে আড়াইহাজার থানার একটি নাশকতা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে নারায়ণগঞ্জের আদালতে হাজির করা হয়। সর্বশেষ গত ২৫ মে মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিনকে ১২ টি মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে নারায়ণগঞ্জ আদালতে হাজির করেছে পুলিশ। এর মধ্যে কয়েকটি মামলায় তার পক্ষে তার আইনজীবীরা জামিনের আবেদন করলেও আদালতে নামঞ্জুর করে তাকে পুনরায় কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেয়।

 

 

Leave a Reply

Back to top button